সামিনা আহমাদ

সামিনা আহমাদ হলেন একজন পাকিস্তানি চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন অভিনেত্রী, মঞ্চ অভিনয়শিল্পী, প্রযোজক ও পরিচালিকা। তিনি উর্দু বিনোদন শিল্পে ৫০ বছরেরও বেশি কাজের অভিজ্ঞতা সম্পন্ন একজন প্রবীণ টেলিভিশন অভিনেত্রী। তিনি ওয়ারিস (১৯৭৯), আলিফ নুন এবং ফ্যামিলি ফ্রন্ট সহ পিটিভির ব্যবসাসফল প্রথম সারির অনেক টেলিভিশন ধারাবাহিকে অভিনয় করেছেন। তার সবচেয়ে সাম্প্রতিক ভূমিকাগুলোর মধ্যে রয়েছে জিও টিভির বহুল জনপ্রিয় চার পর্বের কমেডি ধারাবাহিক কিস কি আয়েগি বারাত (২০০৯-২০১২), হাম টিভির প্রশংসিত কমেডি নাট্য ধারাবাহিক সুনো চান্দা (২০১৮) এবং এর সিক্যুয়েল সুনো চান্দা ২ (২০১৯)। টেলিভিশন শিল্পে তার অবদানের জন্য ২০১১ সালে পাকিস্তান সরকার তাকে প্রাইড অফ পারফরমেন্স সম্মাননায় ভূষিত করেছে।
সুবিন লিম্বু
সুবিন লিম্বু হলেন নেপালি সৌন্দর্য প্রতিযোগিতার একজন শিরোপাধারী। তিনি ২০১৪ সালের ২রা মে তারিখে
তির্সনা গুরুং
তির্সনা গুরুং হলেন একজন নেপালি সঙ্গীতশিল্পী এবং দ্য ভয়েস অফ নেপাল সিজন-৩ এর একজন প্রশিক্ষক
শ্বেতা খডকা
শ্বেতা খডকা হলেন একজন নেপালি চলচ্চিত্র অভিনেত্রী যিনি নেপালি চলচ্চিত্রে কাজ করার জন্য সমধিক পরিচিত
অতিথি গৌতম কে. সি.
অতিথি গৌতম কে. সি. হলেন একজন নেপালি গায়িকা যিনি পেশাদার একক সঙ্গীত অ্যালবাম প্রকাশকারী বিশ্বের
করিশমা মানন্ধর
করিশমা মানন্ধর হলেন একজন নেপালি অভিনেত্রী। তিনি ১৯৮৮ সালে নেপালি চলচ্চিত্র সন্তান-এ ১৬ বছর বয়সে
নিতি শাহ
নিতি শাহ হলেন একজন নেপালি মিডিয়া ব্যক্তিত্ব ও মডেল। তিনি মিস ইন্টারন্যাশনাল নেপাল ২০১৭ সুন্দরী
মেলিনা মানন্ধর
মেলিনা মানন্ধর হলেন একজন নেপালি চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন অভিনেত্রী এবং প্রযোজক
স্বস্তিমা খডকা
স্বস্তিমা খডকা হলেন একজন নেপালি অভিনেত্রী যিনি নেপালি চলচ্চিত্রে কাজ করার জন্য সমধিক পরিচিত। তিনি
পামেলা চ্যাটার্জী
পামেলা চ্যাটার্জী হচ্ছেন একজন ভারতীয় লেখিকা ও পল্লীকর্মী। তার উল্লেখযোগ্য প্রকল্প হল ৬২৫
জেন গ্রিন
জেন গ্রিন শিশু এবং প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য অ-কল্পকাহিনী বইয়ের একজন ব্রিটিশ লেখক। তিনি ৩০০ টিরও বেশি